গোলাপ রাণী

গোলাপের রাণী
মোঃ বেলাল হোসাইন

স্বপ্নে খুজেছি যাকে সে হলো গোলাপের রাণী
যাকে দেখলে তৃষ্ণামিটে যাবে মরুতে পথযাত্রী ।
মুখতার মায়াবী কারুকার্য পূর্ণিমা আলোঁ
চুল তার কবেকার অন্ধকার বিদিশার নিশা,
স্বপ্নে নাকি আলোতে কপালে চুমু একেঁছি তাকে।
ভোরের শিশির আর সবুজে ন্যায় কমল অঙ্গ
যাকে দেখলে পথহারা হবে পালতোলা নাবিক
তাহাকেই দেখেছি আমি সে হলো গোলাপের রাণী।

তুমি চোখ আর আমি সেই চোখের পাতা

তুমি চোখ, আর আমি সেই চোখের পাতা। আমি নিবিড় যত্নে তোমাকে আগলে রাখি বলেই তুমি নিরাপদে থাকো ধুলি, বালি আর আঘাত থেকে। তাই তুমি সবকিছু দেখতে পাও নির্বিঘ্নে কেবল আমাকে ছাড়া। আর আমি চিরকালই তোমার কাছে রয়ে যাই অদেখা, মূল্যহীন, অমর্যাদার। তবুও আমি আছি, থাকবো তোমার আলো আধারীতে….

তুমিহীনা জীবন

রঙ্গ নিয়ে খেলা করতে অনেক মজা লাগে কিন্তু রঙ্গ তুলতে অনেক কষ্ট হয়,
প্রেম করতে অনেক ভালো লাগে কিন্তু ভুলে হয় জীবনের শেষ দিয়ে।
কথাটি যে বলেছিল নিশ্চয় সেও কোন না কোন মেয়ের মায়ায় পড়ে ছিল। হয়তো তার জীবন টাও শেষ হয়ে ছিল।
আমার জীবন টাও ঠিক অনুরূপ,  মন টাকে অনেক বুঝাই কিন্তু মনের সাথে প্রশ্ন উত্তর দিতে পারি না,  মনরে বলি ওর সাথে তোমায় মানায় না,  মন উত্তর দেয় সে মানুষ তুমি ও  মানুষ, সে যে আল্লাহর সৃষ্টি তুমি ও তো সেই আল্লাহর সৃষ্টি, মনরে বুঝাই সে তো রাজকন্যা তুমি তার প্রজার সমান মন বলে তুমি যে  মাটির তৈরি সেও তো তাই,  মনরে যখন বলি চুপ কর তাকে কখনও পাবি না,  মন   তখন দুনয়ন কে জল ঝরায় আর বলে শুধু পাওয়া টাই কি ভালোবাসা???

ভালোবাসি শুধু তোমায়,তোমার মনে জায়গা দিও একটু এই আমায়।

আধো ছায়া আলোতে
আমি আছি আমাতে ।
কবে কখন কোন তাঁরা ঝরে যায়
আকাশ কি তা মনে রাখে –
আমি থাকি বা না থাকি –
ঝরি বা মরি
থাকবো তোমার মনের বাঁকে

তোমায় অনেক বেশি ভালোবাসি

তুমি তো ছিলে জীবনের প্রথম ভালোবাসা তাই তো তোমায় আজও ভুলতে পারিনা

ভালোবাসা কোন ভুল বা পাপ নয় তবে তোমায় ভালোবাসা ছিল হয়তো আমার বড় ভুল

তবে মনে রেখো কোন একদিন ঝড় উঠবে তোমার হৃদয়ে যে দিন তুমি আমার ভালোবাসাটা বুঝবে খুব বেশি কাঁদবে, যে ভাবে আমি কেঁদেছি আর মুখ বুজে সয়েছি, সে দিন তুমি বলবে কোন কিছু প্রয়োজন নেই, প্রয়োজন শুধু তোমাকে, তখন খুজবে তুমি এই আমাকে, আর তখন আমি হারিয়ে গেছি নীল আকাশে, দেহটা পাবে তুমি মাটির নিচে।

জীবনে সুখ পাওয়া যত টা সহজ শান্তি পাওয়া ততোটা নয়।

বুয়েট পাস এমন একজনকে জানি যার বিবাহিত জীবনের১৩টা বছর শুধু একটা বাচ্চা নেয়ার চেষ্টায় কাটিয়ে দিচ্ছে।
তার জীবনে সফলতা আছে কিন্তু পূর্ণতা নাই। 
#ব্যাংকের এ,জি,এম এমন একজনকে জানি যার বউ, দুইটা বাচ্চা রেখে আরেকজনের সাথে পালিয়ে গেছে।তার জীবনে সফলতা পূর্ণতা সবই ছিলো কিন্তু ভালোবাসাটা কপালে জুটেনি। 
#এম,বি,এ পাশ করা একজনকে চিনি, লেখা পড়া শেষ করে
ভালো কিছু করার জন্যে চলে যান দেশের বাহিরে ,তারপর
বিবাহের প্রস্তাব দেন ১৪ বছরের ভালোবাসার মানুষটির পরিবারে।
শুধুমাত্র ছেলে প্রবাসী বলে বিবাহ দেননি।
ভালোচাকুরী মানেই কি সব কিছু?
#প্রেম করে পালিয়ে বিয়ে করা এক মেয়ের গল্পটা জানি, কি নিদারুণ অত্যাচার সহ্য করে একদিন গলায় বিষ ঢেলে দিলো।
ভালোবাসার জন্যে ঘর ছেড়েছিলো, সফলতা আসেনি কখনও। 
#দেশ সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া মেয়েটার গল্পটা জানি।
শুধু গায়ের রঙটা কালো বলে প্রেমিকের বাবা মায়ের হাজারো অবহেলার কথা মাথায় তুলে নিয়ে রিলেশনটা ব্রেকাপ করতে হয়েছিলো। সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইডি কার্ড গলায়
ঝুলিয়েও সে সুখী হতে পারছে না।
#ক্যারিয়ার গঠনের জন্য যে মেয়ে বাবা মাকে বিয়ের কথা
উচ্চারণ করতে দেয়নি, সে মেয়েটির শেষ পর্যন্ত বিয়েই হয়নি।
টাকা পয়সা সব আছে কিন্তু স্বামী সংসার নেই।
#চাকুরী না পাওয়া তরুণের গল্পটাও করুণ।
বেকার থাকার সময়ে প্রেমিকার বিয়ের আয়োজনটা থামাতে পারে নাই।
চাকুরীটা হাতে পাওয়ার আগেই বাবা মারা গেলো। “সফলতা মানেই সুখ” বাক্যটা তার কাছে সম্পূর্ণ মিথ্যা। 
#একজন প্রফেসরের সাথে আমার কথা হয়েছিলো। তিনি বলেছিলো….
বিবাহের চার বছর পর থেকে স্বামী অসুস্থ।
আজ বারো বছর হলো দুই সন্তান ও অসুস্থ স্বামী নিয়ে সংসার করছি।
জীবনে কি পেলাম? সবই ছিলো, ভালো চাকুরী, দুই সন্তান। শুধু অর্থই জীবনের সব কিছু এ কথা তার কাছে হাস্যকর।
#আসলেই জগতে কে সুখে আছে?
টাকায় সুখ দিয়েছে কয়জনকে?
জীবনে সফলতা মানেই কি সুখ?
একটা জীবনে সুখী হয়ে মারা গেছে ক-জন!!
#সুখী দেখেছিলাম আমার এলাকার এক পাগলাকে, সে এক বেলা পেট ভরে খেয়ে কি আয়েশী হাসিটাই না হেসেছিলো!!
শুধু ভরা পেটেই যে সুখে থাকতে পারে তার চেয়ে সুখী আর কেও নাই!!
আমরা যারা মানুষ, তাদের মন ভরে সুখ কখনো আসে না।
আমরা কখনো পরিপূর্নভাবে সুখীও হতে পারি না।।
বাস্তবতাগুলো বড় ফ্যাকাশে,
স্বপ্নের মতো রঙিন হয় না।

তোমার জন্য কিছু কথা।

ভালবাসা হল দুটি মন এক হওয়া।

আজ থেকে একহাজার শীত বসন্ত শেষে এই পথে যদি আছি আবার , সঙ্গে সেই সৃতিভর রংচটা সেই গিটার, সেই অহংকার আগুন, সেই জোয়ার, এইতো সব থাকবে ,সেই আগেকার মতোই পাবো কি দেখা রাজশ্রী তেমার ।হয়তো পথের ধারে পাবো বারে বারে আমার শৈশব কৈশর অমলনীল, পাবো মায়ের আচল প্রিয়া বধূর কাজল, অগভীর ধান শিরির দিন প্রতিদিন, থাকবে একলা চলা নয়তো সঙ্গে বল। থাকবে হাজার পাগলামি আমার হয়তো সন্ধ্যা এসে প্রকৃতির আদেশে মিথর কৃষ্ণনীড় রং ছড়াবে তর বোল। এক পাখি থামিয়ে ডাকাডাকি হঠাৎ তব্দতার গান শুনবে, ফিরবো সেই পথে আবার সঙ্গে সাত সাগর বাধার সঙ্গে সেই স্থীর মন ঢেউ গুনার শেষ সমাপ্ত মানুষের শেষ কথা আর এটাই বাস্তবতার চরম শিখর, ভালবাসা প্রত্যেক মানুষের জীবনে বয়ে আনে আনন্দের সীমারেখা আমি তোমাকে পছন্দ করি এবং ভালবাসি আর এটাই সত্য। আজ থেকে একহাজার শীত বসন্ত শেষে এই পথে যদি আছি আবার , সঙ্গে সেই সৃতিভর রংচটা সেই গিটার, সেই অহংকার আগুন, সেই জোয়ার, এইতো সব থাকবে ,সেই আগেকার মতোই পাবো কি দেখা রাজশ্রী তেমার ।হয়তো পথের ধারে পাবো বারে বারে আমার শৈশব কৈশর অমলনীল, পাবো মায়ের আচল প্রিয়া বধূর কাজল, অগভীর ধান শিরির দিন প্রতিদিন, থাকবে একলা চলা নয়তো সঙ্গে বল। থাকবে হাজার পাগলামি আমার হয়তো সন্ধ্যা এসে প্রকৃতির আদেশে মিথর কৃষ্ণনীড় রং ছড়াবে তর বোল। এক পাখি থামিয়ে ডাকাডাকি হঠাৎ তব্দতার গান শুনবে, ফিরবো সেই পথে আবার সঙ্গে সাত সাগর বাধার সঙ্গে সেই স্থীর মন ঢেউ গুনার শেষ সমাপ্ত মানুষের শেষ কথা আর এটাই বাস্তবতার চরম শিখর, ভালবাসা প্রত্যেক মানুষের জীবনে বয়ে আনে আনন্দের সীমারেখা আমি তোমাকে পছন্দ করি এবং ভালবাসি আর এটাই সত্য।